মহাকাশে বাংলাদেশ: বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১,

শেষ হচ্ছে অপেক্ষার পালা। বঙ্গবন্ধু

স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপনের মধ্য দিয়ে নতুন ইতিহাস রচনার পথে বাংলাদেশ। এরইমধ্যে নেয়া হয়েছে সব ধরণের প্রস্তুতি। আজই মহাকাশে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে বাংলাদেশ সময় রাত দুইটা ১২ মিনিটে উৎক্ষেপণ করা হবে বহুল কাংখিত বাংলাদেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ। (বিস্তারিত)

বাংলাদেশী প্রকৌশলীদের হাতেই

ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার জানিয়েছে, ফ্যালকন-নাইন রকেটের ব্লক ফাইভ সংস্করণ বঙ্গবন্ধু-ওয়ান স্যাটেলাইট নিয়ে ছুটবে জিওস্টেশনারি ট্রান্সফার অরবিটের পথে। এর মধ্য দিয়ে বিশ্বের ৫৭ তম নিজস্ব স্যাটেলাইট সদস্য দেশের তালিকায় নাম লেখাবে বাংলাদেশ। ফ্লোরিডার স্থানীয় সময় ১০ মে বিকেল ৪টা ১২ মিনিট থেকে ৬টা ২২ মিনিটের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ওয়ান উৎক্ষেপনের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ সময় ১১ মে রাত ২টা ১২ মিনিট। স্পেসএক্স এবারই প্রথম উপগ্রহ উৎক্ষেপণে ফ্যালকন- নাইন রকেটের ব্লক ফাইভ ব্যবহার করছে। কেনেডি স্পেস সেন্টারের লঞ্চপ্যাড থার্টি নাইন থেকে যাত্রা শুরু করবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট- ওয়ান।

Mohakashe bd

এই লঞ্চপ্যাড থেকেই ১৯৬৯ সালে চন্দ্রাভিযানে রওনা হয়েছিল অ্যাপোলো- ইলেভেন। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নির্মিত হয়েছে ফ্রান্সের তালিস এলিনিয়া স্পেস ফ্যাসিলিটিতে। নির্মাণ, পরীক্ষা, পর্যালোচনা ও হস্তান্তর শেষে বিশেষ কার্গো বিমানে কেইপ কেনাভেরালের লঞ্চ সাইটে স্থাপন করা হয় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে থাকবে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার, যার ২০টি বাংলাদেশের ব্যবহারের জন্য রাখা হবে।বাংলাদেশী প্রকৌশলীদের হাতেই গাজীপুর ও রাঙামাটির বেতবুনিয়া আর্থ স্টেশন থেকে নিয়ন্ত্রিত হবে এটি। সূত্র: স্পেসএক্স ও বিবিসি বাকীগুলো ভাড়া দিয়ে আসবে বৈদেশিক মুদ্রা। বিদেশী স্যাটেলাইটের ভাড়া বাবদ ১৪ মিলিয়ন ডলার এই উপগ্রহের মাধ্যমে সাশ্রয় হবে। শুরুতে বাজেট ধরা হয় ২৯৬৭.৯৫ কোটি টাকা।

শেষ পর্যন্ত অবশ্য ২৭৬৫ কোটি টাকায় এ পুরো প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব হল। এর মধ্যে ১৩১৫ কোটি টাকা দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার আর বাকিটা বিদেশি অর্থায়ন। আর্থ স্টেশন থেকে ৩৫ হাজার ৭৮৬ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে স্যাটেলাইটটির কক্ষপথে যেতে সময় লাগবে ৮-১১ দিন। আর পুরোপুরি কাজের জন্য প্রস্তুত হবে ৩ মাসের মধ্যে। এরপর প্রথম ৩ বছর থ্যালাস অ্যালেনিয়ার সহায়তায় এটির দেখভাল করবে বাংলাদেশ। পরে পুরোপুরি মাথায় হেলমেট ছিলো না বলে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারালে দুইজনই মাথায় আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। এরপর প্রথম ৩ বছর থ্যালাস অ্যালেনিয়ার সহায়তায় এটির দেখভাল করবে বাংলাদেশ। পরে পুরোপুরি মাথায় হেলমেট ছিলো না বলে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারালে দুইজনই মাথায় আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়।